নয়া কইন্না আইয়া ঘরে
ছড়ায় চান্দের বাতি
আইয়ো আইয়ো আইয়ো সবে
আনন্দেতে মাতি।।


দাদা-দাদী নানা- নানী
নাচে হেলেদুলে
মাটিতে তার পা পড়ে না
হাসে ছেলে-পুলে।।
পান - সুপারি খাইতে বসে
  নানা নায়-নাতি।


চাচা - চাচী মামা-মামী
ভাব ধরিয়া বসে
খালা খালু  ফুপা ফুপি
লসের হিসেব কষে।।
কইন্নার বাবা তাই দেখিয়া
করে মাতামাতি।


নয়া কইন্নার রূপ দেখিয়া
চাঁদ যে লজ্জা পায়
ধরার বুকে এলে তুমি
পুলকিত মায়।।
ছেলে-মেয়ে নাই ভেদাভেদ
তারাই চোখের জ্যোতি।