ঠুন ঠুন কাঁকনে যে কি সুর বাজেরে
মনের ময়ূরী মেলে দিল পাখা লাজেরে
ফুলে ফুলে জাগে রঙের হাসি ভ্রমর কি সুরে বাজালো বাঁশী----
একি সাজে আজ ফাগুন সাজেরে ।


প্রাণে মোর বাজে কি গানের সুর
বারে বারে শুনি আড়াল থেকে
পাখির গান হয়ে কে গেল ডেকে
একি খুশী জাগে মনের মাঝারে
ডেকোনা বাঁশীতে শ্যাম ধরি দুটি পায়
জল নিতে যাবো আর নেই যে উপায়


ও বাঁশী এ নাম ধরে এত রাতে ডাকে মোরে
যাবো কি যাবো না ভেবে ----
কি করি যে উপায়
কথা না বলে যেওনা, যেওনা যেওনা চলে, কথা না বলে
এ মধুরাতে থেকো বধূ সাথে তনুমন যেন অনুক্ষণ দোলে ।